অরিত্রির আত্মহত্যার দায়িদের এবং শারমিন হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

ভিকারুন্নেসা স্কুলছাত্রী অরিত্রির আত্মহত্যার দায়িদের এবং গোপীবাগে স্কুল ছাত্রী শারমিন হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

IMG_20181205_125202 - Copyসমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে ভিকারুন্নেসা স্কুলছাত্রী অরিত্রির আত্মহত্যার দায়িদের এবং গোপীবাগে স্কুল ছাত্রী শারমিন হত্যার বিচারের দাবিতে ০৫ ডিসেম্বর বেলা ১২টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বেলা ১২টায় মধুর কেন্টিন থেকে মিছিল শুরু হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রদক্ষিন করে কলাভবনের সামনে এসে শেষ হয় এবং একটি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ইমরান হাবিব রুমনের সভাপতিত্বে ও অর্থ সম্পাদক রুখসানা আফরুজ আশার পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ ঢাকা নগরের সদস্য ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-৮ আসনের পার্থী প্রকৌশলী শম্পা বসু, ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক সজল বাড়ৈ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ ভিকারুন্নেসা স্কুলছাত্রী অরিত্রি আত্মহত্যার জন্য স্কুলের শিক্ষকদের দায়ি করে বলেন, অরিত্রি ভুল করে মোবাইল সাথে করে নিয়ে যাওয়ার পর ঘটনার জন্য বারবার সে ও তার অভিবাবক ক্ষমা চাওয়ার পরও অধ্যক্ষ ঐ শিক্ষার্থীর সামনেই তাকে এবং তার অভিভাবককে চরম অপমান করেন। এই ঘটনার পরপরই অরিত্রি আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। নেতৃবৃন্দ আত্মহত্যার প্ররোচনাকারী হিসেবে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, প্রভাতি শাখার জিন্নাত আরা এবং শ্রেণী শিক্ষক হাসনা হেনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান। শিক্ষকদের দ্বারা অপমানিত হয়েছে এবং তাকে স্কুল থেকে অনিয়মতান্ত্রিক উপায়ে বহিস্কারের যে আদেশ তার প্রেক্ষিতেই সে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে বক্তারা এই ঘটনার সুষ্ট তদন্ত স্বাপেক্ষে স্কুলের প্রধান শিক্ষক সহ যারা জরিত তাদের স্কুল থেকে বহিষ্কার ও দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তির আওতায় আনার আহ্বান জানান। অন্য দিকে গোপীবাগে স্কুল ছাত্রী শারমিন হত্যার সাথে জরিতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনকে উদ্যোগ গ্রহনের আহ্বান জানান।