কল্পনা চাকমার অপহরণের রহস্য উন্মোচনের দাবি-সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম

Kalpana Chakmaসমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রওশন আরা রুশো ও সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শম্পা বসু আজ ১১ জুন ২০১৬ সংবাদপত্রে দেয়া এক যুক্ত বিবৃতিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের আঞ্চলিক সংগঠন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক কল্পনা চাকমা অপহরণের রহস্য উন্মোচনের জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৯৯৬ সালের ১১ জুন মধ্যরাতে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার নিউ লাইল্যাঘোনার নিজ বাড়ি থেকে অপহৃত হন তিনি। এই ঘটনাটি বাংলাদেশ এবং বহিঃবিশ্বে তুমুল আলোড়ন সৃষ্টি করে। এমনকি তখন এ ঘটনার প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়, সেই বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে হতাহতের ঘটনাও ঘটে।
এই অপহরণের জন্য অপহৃতার পরিবার থেকে বরাবরই অপহরণকারী হিসেবে তৎকালীন সময়ে রাঙামাটিতে কর্তব্যরত সামরিক বাহিনীর কয়েকজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়।
কল্পনা চাকমা অপহৃৎ হওয়ার পর দেশ ও বিদেশে সংগঠিত বিভিন্ন জনমত ও আন্দোলনের চাপে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ১৯৯৬ সালের ৭ সেপ্টেম্বর সরকারের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি আব্দুল জলিলকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করতে বাধ্য হয়। একই সাথে সরকার পুলিশ বিভাগের মাধ্যমেও তদন্ত পরিচালানা করে। কিন্তু দীর্ঘ প্রায় ২০ বছর পূর্ণ হলেও এখনও তদন্তের রিপোর্ট জনসম্মুখে প্রকাশ করা হয়নি এবং কল্পনা চাকমা জীবিত না মৃত তা জানা যায়নি।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ কল্পনা চাকমার অবস্থান নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান। একই সাথে সকল প্রকার গুম, খুন, অপহরণের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য নারী-পুরুষসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।