জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দিতে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ-সিলেটে কমরেড খালেকুজ্জামান

SBP PICTURE copyবাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান বলেছেন-দেশের মানুষ নির্বাচিত-অনির্বাচিত, সামরিক-অসামরিক স্বৈরশাসন দেখেছে। গণতান্ত্রিক সরকার কিংবা গণতান্ত্রিক বিধিব্যবস্থা দেখেনি। বরং গণতান্ত্রিক শাসন ও বিধি ব্যবস্থা পরিপন্থী আইন-কানুন, বিধি-বিধান, প্রথা-প্রতিষ্ঠান, রাজনীতি, অর্থনীতি, সংস্কৃতি ইত্যাদিকেই দিনে দিনে শক্তিশালী করে তুলতে দেখেছে। যে কারণে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী, এমপি সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বাড়লেও গার্মেন্টসসহ বেসরকারি খাতের সংখ্যাগরিষ্ঠ শ্রমিক-কর্মচারী-কর্মকর্তাদের বেতন বাড়েনি। শাসকশ্রেণি আকাশ বাতাস ফাটিয়ে তাদের উন্নয়নের ঢাকের বাজনা যেভাবে বাজাচ্ছে তার নিচে চাপা পড়ছে বঞ্চিত সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের আহাজারি। এর সাথে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস, দলীয় সন্ত্রাস, গোষ্ঠী সন্ত্রাস পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দিতে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ।
কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, এই পরিস্থিতিতে যুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত চেতনা শোষণহীন সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যেকে সামনে রেখে এই মুহূর্তে প্রয়োজন জোট- মহাজোটের বাইরে জনগণের বিকল্প রাজনীতি শক্তি গড়ে তোলা।
কমরেড খালেকুজ্জামান গতকাল শনিবার বিকাল ৩টায় বাসদ এর ৩৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও রুশ বিপ্লবের ৯৮তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বাসদ সিলেট জেলা শাখা আয়োজিত ঐতিহাসিক কোর্ট পয়েন্টের বিরাট জনসভায় উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। বাসদ সিলেট সমন্বয়ক কমরেড আবু জাফর সভাপতিত্বে এবং বাসদ জেলা সদস্য প্রণত জ্যোতি পালের সঞ্চালনায় এই জনসভায় আরো বক্তব্য রাখেন বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ। জনসভায় উপস্থিত ছিলেনÑ গণতন্ত্রী পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি ব্যারিস্টার আরশ আলী, কমিউনিস্ট পার্টি সিলেট জেলা শাখার সাবেক সভাপতি এডভোকেট বেদানন্দ ভট্টাচার্য্য, জাসদ কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লোকমান আহমদ, সাম্যবাদী দলের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য ধীরেন সিংহ, সাম্যবাদী দলের নেতা অধ্যক্ষ ব্রজগোপাল, প্রবাসী বামপন্থী নেতা ড. নেছার আহমদ কাওসার, কমিউনিস্ট পার্টি সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আনোয়ার হোসেন সুমন, গণতন্ত্রী পার্টির সিলেট জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক গোলজার আহমদ, বাসদ সিলেট জেলার নেতা জুবায়ের আহমদ চৌধুরী সুমন, চারণ সিলেট জেলার সংগঠক নাজিকুল ইসলাম রানা, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আহমদ, সমাজতান্ত্রিক কৃষক ফ্রন্ট সিলেট সদর থানার সভাপতি হামিদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক রুমন বিশ্বাস, যুব ইউনিয়ন সিলেট জেলা সভাপতি খায়রুল হাসান, গণতন্ত্রী পার্টির সিলেট জেলার সমাজসেবা সম্পাদক আজিজুর রহমান খোকন, ছাত্রফ্রন্ট সিলেট মহানগর সভাপতি পাপ্পু চন্দ, সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম সাকিব, ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক সপ্তর্ষী দাস, শাবিপ্রবি ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি শ্রীকান্ত শর্মা প্রমুখ।
জনসভার প্রারম্ভে ছন্দ-নৃত্যালয় সিলেট এর পরিবেশনায় একটি নৃত্যালেখ্য পরিবেশন করা হয়।