জেরুজালেমে ইসরাইলস্থ মার্কিন দূতাবাস প্রতিষ্ঠা চলবে না – ফিলিস্তিনে গণহত্যার প্রতিবাদে সোচ্চার হোন

150518-CPB-SPB-4ইসরাইলস্থ মার্কিন দূতাবাস সেদেশের রাজধানী তেলআবিব থেকে অধিকৃত জেরুজালেমে স্থানান্তরের প্রতিবাদে এবং গাজা উপত্যকায় ৫৮ জন প্যালস্টাইনী নাগরিককে হত্যা এবং আড়াই হাজার প্যালেস্টাইনীকে জখম করার প্রতিবাদে  ১৫ মে ২০১৮ সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সিপিবি ও বাসদ এর উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ও বংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ’র এ বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা বজলুর রশীদ ফিরোজ, সিপিবি’র কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাড. হাসান তারিক চৌধুরী ও বাসদ নেতা প্রকৌশলী শম্পা বসু।

সভাপতির বক্তব্যে বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান বলেন, মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ মধ্যপ্রাচ্যে তার লুটপাট এবং আধিপত্য কায়েমের লক্ষ্যেই এ ঘৃণ্য তৎপরতা চালাচ্ছে। গাজায় নিরীহ প্যালেস্টাইনী এবং জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থাপনের অপচেষ্টার মধ্য দিয়ে মার্কিন প্রশাসন আসলে প্যালেস্টাইনের স্বাধীন সংগ্রামকে বানচাল করতে চায়। জেরুজালেমে তাদের দূতাবাস স্থাপন সে চক্রান্তেরই অংশ। দক্ষিণ এশিয়ায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার মার্কিনী নীলনকশা প্রতিহত করার আহ্বান জানান তিনি।

সভায় সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ইসরাইলস্থ মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তর এবং গাজায় ৫৮ জন নিরীহ প্যালেস্টাইনী নাগরিকদের হত্যা এমন এক সময়ে হতে যাচ্ছে যে দিনটি প্যালেস্টাইনীদের জন্য এক বিশেষ দিন। ৭০ বছর আগে এই দিনে জায়নবাদী ইসরাইলীরা গায়ের জোরে ১০ লক্ষ প্যালেস্টাইনীকে নিজ বাসভূমি থেকে উচ্ছেদ করেছিল। মার্কিন সাম্রাজ্যবাদের সরাসরি মদদে আজ ইসরাইল ধারাবাহিকভাবে প্যালেস্টাইনী মার্কিন দূতাবাস স্থাপন সাম্রাজ্যবাদী জায়নবাদী চক্রান্তেরই অংশ। তিনি আরো বলেন, সিপিবি-বাসদ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে এবং বিশ্ববাসীকেও এ হামলা ও চক্রান্তের বিরুদ্ধে সোচ্চার হবার আহ্বান জানাচ্ছে। বর্তমান সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, প্যালেস্টাইন ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে সমর্থন জানিয়েছিল। বিপরীতে আমেরিকা, ইসরায়েল আমাদের মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতা করেছিল। আজ প্যালেস্টাইনের ওপর এ হামলা এবং মার্কিন চক্রান্তে বাংলাদেশ সরকার যদি নিন্দা ও প্রতিবাদ না করে তাহলে তারা কতটা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে এ নিয়ে প্রশ্ন তোলা স্বাভাবিক।
সমাবেশে অন্যান্য বক্তারা বলেন, অস্ত্র ব্যবসা ও যুদ্ধ ছাড়া সাম্রাজ্যবাদ টিকে থাকতে পারে না। এই কারণে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ সারা বিশ্বে যুদ্ধের উন্মাদনা তৈরিতে নানা ছলছাতুরি করছে। আজ ইসরাইল, সৌদি আরবও আমেরিকার সাথে এক হয়েছে। বক্তারা প্যালেস্টাইনে হামলা ও মানুষ হত্যা বন্ধে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোকে তৎপর হওয়ার আহ্বান জানান।
আগামী কর্মসূচি : আগামী ১৯ মে ২০১৮, শনিবার প্যালেস্টাইন থেকে মার্কিন দূতাবাস প্রত্যাহার ও ফিলিস্তিনিদের হত্যার প্রতিবাদে সিপিবি-বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা উদ্যোগে দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে।