দমন-পীড়ন পরিহার করে আলোচনা মাধ্যমে শ্রমিকদের সমস্যা সমাধান করুন-খালেকুজ্জামান

বাসদ নেতা সৌমিত্র কুমার দাস এর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি
দমন-পীড়ন পরিহার করে আলোচনা মাধ্যমে শ্রমিকদের সমস্যা সমাধান করুন
sowmitra-kumar-3বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ এর কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান ২২ ডিসেম্বর ২০১৬ সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে অবিলম্বে বাসদ সাভার উপজেলা শাখার আহ্বায়ক সৌমিত্র কুমার দাস এর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির সাথে সঙ্গতি রেখে মজুরি বৃদ্ধির দাবিকে কেন্দ্র করে আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে শ্রমিক অসন্তোষ ও তার ধারাবাহিকতায় কর্মবিরতির প্রকৃত কারণ উদ্ঘাটন করে তা সমাধানের উদ্যোগ না নিয়ে মালিক পক্ষ কারখানা বন্ধ ও বেতন না দেয়ার ঘোষণা দিয়ে এবং শ্রমিক নেতাদের গ্রেফতার-নির্যাতন-দমন-পীড়নের পথ গ্রহণ করা মোটেই সুবিবেচনার কাজ নয়।
তিনি বলেন, ৩ বছর আগে গার্মেন্টস শিল্পে ন্যূনতম মজুরি সর্বমোট ৫৩০০ টাকা ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু এর পর গত ৩ বছরে দ্রব্যমূল্য, গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানির দাম, গাড়ি ভাড়া, বাড়ি ভাড়া বহুগুণ বৃদ্ধি পেলেও তার সাথে সমন্বয় করে শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধি না করাই যে শ্রমিক অসন্তোষের কারণ তা এড়িয়ে দমন-পীড়নের পথ সরকার ও মালিক পক্ষ অবলম্বন করেছে। যা শ্রমিক অসন্তোষকে আরো বাড়িয়ে দিতে পারে।
বিবৃতিতে খালেকুজ্জামান বলেন, শ্রমিক নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনার মাধ্যমেই এ সমস্যার একমাত্র সমাধান সম্ভব। তিনি বলেন, গতকাল আশুলিয়া শিল্পাঞ্চল পুলিশের সার্কেল এ এস পি নাজমুল হাসান আলোচনার কথা বলে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় নেতা ও বাসদ সাভার উপজেলা আহ্বায়ক সৌমিত্র কুমার দাসসহ ১৬টি শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে ফ্যান্টাসি কিংডমের ভিতর ডেকে নিয়ে গিয়ে গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনা খুবই অনাকাঙ্খিত ও দুঃখজনক। সরকার, মালিক ও পুলিশ শ্রমিক আন্দোলন হলেই তার প্রকৃত কারণ না খুঁজে ষড়যন্ত্র খুঁজেন।
বিবৃতিতে খালেকুজ্জামান অবিলম্বে সৌমিত্র সহ নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন এবং ষড়যন্ত্র তত্ত্ব না খুঁজে, সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ গ্রহণ ও আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান তথা জাতীয় মজুরি বোর্ড গঠন করে বাঁচার মতো ন্যূনতম মজুরি ১৫ হাজার টাকা ঘোষণার দাবি জানান।