বেগম রোকেয়ার শিক্ষা নারীমুক্তি আন্দোলনের হাতিয়ার-কমরেড খালেকুজ্জামান

201215-Part of Rally6 copy

????????????????????????????????????বেগম রোকেয়া স্মরণে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম বেগম রোকেয়া দিবস উদ্যাপন কমিটি রংপুর ও রাজশাহী বিভাগ এর উদ্যোগে ২০ ডিসেম্বর ২০১৫ দুপুর ১টায় র‌্যালি ও বেলা ২টায় পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে নারী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। নারী সমাবেশ উদ্বোধন করেন রংপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান প্রবীণ জননেতা সর্বজন শ্রদ্ধেয় মোহাম্মদ আফজাল। বেগম রোকেয়া দিবস উদ্যাপন কমিটি রাজশাহী ও রংপুর বিভাগ এর আহ্বায়ক প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনার সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ এর সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শ্যামল ভট্টাচার্য্য, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জাহেদুল হক মিলু, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম এর কেন্দ্রীয় সভাপতি রওশন আরা রুশো, সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শম্পা বসু, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক রোকেয়া চৌধুরী রেখা, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইশরাত জাহান লিপি, প্রগতিশীল চিকিৎসক ফোরাম এর কেন্দ্রীয় সংগঠক ডা: মনিষা চক্রবর্ত্তী প্রমূখ। সভা পরিচালনা করেন বেগম রোকেয়া দিবস উদ্যাপন কমিটি রাজশাহী ও রংপুর বিভাগ এর সদস্য সচিব ও সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক দিলরুবা নূরী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাসদ রংপুর জেলা সমন্বয়ক আব্দুল কুদ্দুস, আদিবাসী নারীনেত্রী আরতী পাহান।201215-Khalequzzaman-5বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ এর সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, বেগম রোকেয়ার বহু পরিচয় আমরা পাই। তিনি ছিলেন, সমাজতাত্ত্বিক, সমাজ সংস্কারক, শিক্ষানুরাগী শিক্ষক, শিক্ষা-বিশেষ করে নারী শিক্ষা বিস্তার আন্দোলনের সংগঠক, দেশপ্রেমিক, শ্রেণি সচেতন সেক্যুলার মানবতাবাদী এবং ভারতীয় সমাজে রামমোহন-বিদ্যাসাগর নবজাগরণ আন্দোলনের যে জোয়ার তুলেছিলেন তার ধারাবাহিকতায় রেনেঁসার পতাকাবাহী বিশেষ করে মুসলিম সমাজে জাগরণের পথিকৃৎ। বেগম রোকেয়া তাঁর স্বপ্নের দেশ সুলতানার স্বপ্নে নারীস্থানের কথা বলেছিলেন। যুক্তি ও বিজ্ঞানের ভিত্তিতে দাঁড়ানো একটি দেশে শোষণ-বঞ্চনা নেই, অনাহারে মৃত্যু নেই। বেগম রোকেয়ার সে শিক্ষা থেকে আমরা কত দূরে অবস্থান করছি! আজকের নারীমুক্তির আন্দোলনে তো বটেই দেশরক্ষার আন্দোলনেও বেগম রোকেয়ার শিক্ষা আমাদের অনুপ্রেরণা। বেগম রোকেয়া বলেছিলেনÑ‘জাগো গো ভগিনী!… সমাজের কল্যাণের নিমিত্তে তোমাকে জাগিতেই হইবে।’ এ আহ্বানকে মনে রেখে শুধুমাত্র নিজে আর একটু ভাল থাকাই নয়, সকলের কল্যাণের মধ্যে নিজে ভালো থাকার সংগ্রামের আহ্বানে আজকের নারী সমাজ সাড়া দিবে এই আমাদের প্রত্যাশা। আমরা মনে করি শোষণ ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে নারী জাগরণ, মর্যাদা ও অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নারী আন্দোলন গড়ে তোলার মধ্যেই বেগম রোকেয়ার শিক্ষার ধারা প্রবাহমান থাকবে।201215-Afzal Hossain-1রংপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান প্রবীণ জননেতা সর্বজন শ্রদ্ধেয় মোহাম্মদ আফজাল বলেন, নারীমুক্তি আন্দোলনের পথিকৃৎ বেগম রোকেয়া আজও প্রাসংঙ্গিক। নারীমুক্তি আন্দোলন কর্মীদের মাঝে আজও তিনি অনুপ্রেরণা।????????????????????????????????????সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম এর কেন্দ্রীয় সভাপতি রওশন আরা রুশো বলেন, আজকের দিনে নারী শিক্ষার প্রসার হয়ত অনেক ঘটেছে। কিন্তু আপামর নারীসমাজের মানবিক মর্যাদার উন্নয়ন ঘটেনি। পথে-ঘাটে, কর্মস্থলে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে, ঘরে-বাইরে সর্বত্র নারীর উপর সহিংসতা, লাঞ্ছনা, অপমানের ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে। সমকাজে সম-মজুরি না পাওয়া, যৌতুক, বাল্যবিবাহের বলি হওয়া, সম্পত্তির উত্তরাধিকারে সমঅধিকার না পাওয়া, সিনেমা-নাটক-বিজ্ঞাপনে নারীকে পণ্য হিসেবে উপস্থাপন করাÑএসবই স্বাধীন দেশে রোকেয়ার মৃত্যুর ৮৩ বছর পরেও বাংলাদেশের নারীদের সাধারণ জীবন চিত্র। যে পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতার বিরুদ্ধে বেগম রোকেয়া সারা জীবন লড়াই করেছেন আজ উপজেলা নির্বাচনেও সংরক্ষিত নারী আসনে চুড়ি, চুলা, পুতুল প্রতীকের মাধ্যমে আবারও পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতার পরিচয় দিল নির্বাচন কমিশন।

সভার সভাপতি বেগম রোকেয়া দিবস উদ্যাপন কমিটি রাজশাহী ও রংপুর বিভাগ এর আহ্বায়ক প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা বলেন, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম এই অঙ্গীকার ধারণ করে যে বেগম রোকেয়াকে স্মরণ শুধুমাত্র একটি আনুষ্ঠানিকতা নয়। আমাদের দেশের প্রত্যেক প্রান্তে নারী সমাজের মাঝে রোকেয়ার সংগ্রামী চেতনাকে আমরা ছড়িয়ে দিতে চাই। সেই আকাক্সক্ষার অংশ হিসেবে আজকের এই নারী সমাবেশ।