মাদক নিয়ন্ত্রণের নামে কথিত বন্দুক যুদ্ধে বিচার বহির্ভূত হত্যা বন্ধ করুন-কমরেড খালেকুজ্জমান

মাদক নিয়ন্ত্রণের নামে কথিত বন্দুক যুদ্ধে বিচার বহির্ভূত হত্যা বন্ধ করুন
মাদকের প্রকৃত হোতাদের গ্রেপ্তার ও বিচারের আওতায় আনুন
Haturi-kastey edited copyবাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জমান আজ ২৮ মে ২০১৮ সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে মাদক নিয়ন্ত্রণ অভিযানে কথিত বন্দুক যুদ্ধে বিচার বহির্ভূতভাবে মানুষ হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, অপরাধ দিয়ে অপরাধ দমন চেষ্টায় সাময়িক সাফল্য দেখানো গেলেও সুদূরপ্রসারী ফলাফল ভালো হয়না। তাছাড়া  এতে শাসক দলের সেচ্ছাচারী প্রবণতা বাড়িয়ে তোলে ও আইন-আদালত, আইনের শাসন ও মানবাধিকার প্রভৃতির প্রতি তাদের চরম অনাস্থা ও অশ্রদ্ধার প্রকাশ ঘটায়।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, মাদকের ভয়াবহ ছোবলে যুব সমাজ ধ্বংসপ্রাপ্ত হতে চলেছে। এর কুফল থেকে দেশবাসী মুক্তি চায়। কিন্তু শুরু থেকে দীর্ঘকাল নির্বিকার থেকে দিনে দিনে বাড়তে দিয়ে এখন উঠে পড়ে লেগে যেভাবে কথিত বন্দুক যুদ্ধে হত্যা চালিয়ে মানুষ খুন করা হচ্ছে তাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীকে আরো বেপরোয়া, সীমালংঘনকারী, দুর্নীতিগ্রস্ত হওয়ার পথ প্রশস্ত করে দেবে। ইতিমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা যেভাবে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে এবং সরকারের লাঠিয়াল বাহিনী হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে তা আরো বাড়িয়ে দেবে। এমনকি আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যে শংকা ও সন্দেহ তৈরি হয়েছে তাকেও বহুগুণ বাড়িয়ে দিয়ে দেশকে এক ভয়ংকর অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিতে পারে।
বিবৃতিতে খালেকুজ্জামান বলেন, মানুষ মাদক মুক্ত সমাজ চাইলেও শাসক দল ও সরকারের উদ্দেশ্য সম্পর্কে সন্দিহান হয়ে পড়ছে। আইন, বিচার ও সুশাসনকে সুনাগরিক গড়ে তোলার পরিপূরক করা প্রয়োজন। তিনি মাদকমুক্ত দেশ গড়তে মাদকের বড় কারবারী, সহযোগী পুলিশ, মাদক অধিদপ্তর ও রাজনৈতিকভাবে কর্তৃত্বশালীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেন। একই সাথে মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।