মৌলবাদীদের কাছে সরকারের নির্লজ্জ আত্মসমর্পন করে কওমীর স্নাতকোত্তর স্বীকৃতি ও ভাস্কর্য অপসারণের চক্রান্ত মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরিপন্থী-সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট

SSF-170417কোন নিয়ম নীতি না মেনে কওমী মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসকে স্নাতকোত্তর সমমানের স্বীকৃতি দেয়া, সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে ন্যায় বিচারের প্রতীক ভাস্কর্য জাস্টিসিয়া অপসারণের ঘোষণার মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক-মৌলবাদী শক্তির সাথে শাসক আওয়ামী লীগ সরকারের নজিরবিহীন আপোষ ও মৌলবাদী শক্তিকে প্রশ্রয় দেয়ার প্রতিবাদে আজ ১৭ এপ্রিল বেলা ১২.০০ টায় সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দপ্তর সম্পাদক শ্যামল বর্মন, অর্থ সম্পাদক রোখসানা আফরোজ আশা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগঠক আলমগীর হোসেন সুজন প্রমুখ।
নেতৃবৃন্দ বলেন, ভোটের স্বার্থে বর্তমান সরকার মৌলবাদীদের কাছে নির্লজ্জ আত্মসমর্পন করেছে। মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে অর্জিত চেতনার বাংলাদেশকে স্বাধীনতার পরবর্তী ৪৬ বছরের শাসকেরা আকাঙ্খার বিপরীতে দেশ পরিচালনা করে আসছে। সংবিধানে বিসমিল্লাহ, রাষ্ট্র ধর্ম ইসলাম করে সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রে পরিণত করেছে, স্বাধীনতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধী দল জামাত-হেফাজতের প্রস্তাবিত দাবি স্কুলের পাঠ্যপুস্তকের সিলেবাসে, কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করেছে। এখন ভাষ্কর্য অপসারণের ঘোষণার মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক-মৌলবাদী শক্তির সাথে শাসক আওয়ামী লীগ সরকার নজিরবিহীন আপোষ করলো যা মৌলবাদী, জঙ্গিবাদী অপশক্তিকে আরো ঔদ্ধত্য যোগাবে। এটা সবাই জানে ভাষ্কর্য এবং মূর্তি এক নয়। প্রথমে আওয়ামী ওলামা লীগ তারপর হেফাজতে ইসলাম এবং কওমী মাদ্রাসাকে মাঠে নামিয়ে যে পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হয়েছে তা মূলতঃ সম্প্রদায়িক উন্মাদনাকে পরিপুষ্ট করবে। একদিকে মুক্তিযুদ্ধের কথা অন্যদিকে ধর্মের রাজনীতিকে পৃষ্ঠপোষকতা করার পরিণতি সমাজের দীর্ঘদিনের ধর্মীয় সহনশীলতার পরিবেশকে নষ্ট করবে। ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত মুক্তিযোদ্ধের অর্জনগুলি তথা জাতীয়তাবাদ-সমাজতন্ত্র-গণতন্ত্র-ধর্মনিরপেক্ষতার রাষ্ট্রিয় মূল আদর্শ ধ্বংস করবে।
নেতৃবৃন্দ ভোট ও গদির স্বার্থে এই সর্বনাশা পথ অনুসরন না করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। একই সাথে সরকারের এই ধরনের ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পৃষ্ঠপোষকতা এবং শিক্ষাসহ সমাজের সর্বস্তরে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাস্প ছড়ানোর বিরুদ্ধে দেশের ছাত্র-জনতাসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।