সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর প্রতিবাদ সমাবেশ

160116_SSF Human Chainনিম্নমানের কাগজ, অস্পষ্ট ছাপানো এবং খারাপ বাঁধায়ের বই ছাপানোর সাথে যুক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ঢাকা মহানগরীর স্কুলগুলোতে বর্ধিত ফি প্রত্যাহার করার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ-সমাবেশ160116_SSF Human Chain-Nantoবছরের শুরুতে নিম্ন মানের কাগজ, অস্পষ্ট এবং খারাপ বাঁধায়ের বই ছাপানোর সাথে যুক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি; জড়িত সকল প্রতিষ্ঠানগুলোকে কালো তালিকাভূক্ত করা এবং ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন স্কুলে দ্বিগুন ফিসহ সকল বর্ধিত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর উদ্যোগে আজ ১৬ জানুয়ারি সকাল ১১.৩০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ হয়।
কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জনার্দন দত্ত নান্টুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ইমরান হাবিব রুমন এর পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স, অর্থ সম্পাদক ও নগর শাখার সভাপতি রুখসানা আফরোজ আশা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সদস্য ম্যাথিউস চিরান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি এমএম মুজাহিদ অনিক, ইডেন কলেজ শাখার সভাপতি মুক্তা বাড়ৈ, খিলগাঁও থানা শাখার সভাপকি অনিক কুমার দাস, সরকারি বদরুন্নেসা মহিলা কলেজের আহ্বাক রুকাইয়া আক্তার লিপি প্রমুখ।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, বছরের শুরুতে বই বিতরণের বাহবা নিতে সরকার যতটা তৎপর ছিল, বইয়ের কাগজের মান ছাপানো এবং বাঁধাইয়ে যে কোন ধরণের মনোযোগ ছিল না সেইটাই প্রমাণিত হলো। আবার এখন পর্যন্ত যে সকল ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এই দুর্নীতির সাথে যুক্ত তাদের বিরুদ্ধেও কার্যকর কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় আমরা বিষ্মিত। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে এসকল প্রতিষ্ঠানগুলোকে কালো তালিকাভূক্ত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বছরের শুরুতে নি¤œমানের কাগজ, অস্পষ্ট ছাপানো এবং খারাপ বাঁধায়ের বই ছাপানোর সাথে যুক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন এবং জড়িত সকল প্রতিষ্ঠানগুলোকে কালো তালিকাভূক্ত করার দাবি জানান।
নেতৃবৃন্দ ঢাকা মহানগরীতে বিভিন্ন স্কুলে ভর্তি ফি, টিউশন ফি প্রায় দ্বিগুন বৃদ্ধিসহ অন্যান্য সকল খাতে বর্ধিত সকল ফি প্রত্যাহারের দাবি জানান এবং আন্দোলনরত অভিভাবক-শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি জানান। নেতৃবৃন্দ এই বর্ধিত ফি আদায় বন্ধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ প্রত্যাশা করেন।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ আজ সকাল ৮টার দিকে বার কাউন্সিল ভবনের সামনে স্কুলে যাওয়া উদ্দেশ্যে রাস্তা পারাপারের সময় চলন্ত বাসের ধাক্কায় সেগুনবাগিচা বেগম রহিমা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী সাবিহা আক্তার সোনালীর মৃত্যুতে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানান। নেতৃবৃন্দ সোনালীর মৃত্যুর জন্য দায়িদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।